শরীরের কবিতা

আমি তো হেঁটে গেছি শরীরের দিকে, আমি তো জেনে গেছি– শরীরই প্রার্থনালয়…

আমি তো দেখে ফেলি, একবার উড়ে যাওয়ার পর ডানাভাঙা ফড়িং আবার এলো ফিরে ঘরে; কারণ, তার ঠোঁটেও এঁকেছিলাম চুমু, আরও এঁকেছিলাম প্রেমান্ধ গিটারিস্টের অজস্র রাগি কর্ড, রকস্টারের চিৎকারমাখা প্রার্থনা এবং র‍্যাম্পমডেলের নাভীর নিচে লেপ্টে থাকা সাপ-ট্যাট্টুর লকলকে জিহ্বা– লাল…

আমি তো ভেসে গেছি শূন্যতার দিকে, আমি তো দেখে ফেলেছি– দিগন্তের মুখোমুখি হলে মাটি কেমন হয়ে ওঠে নগ্ন উন্মাদ ও ভয়াবহ প্রেমিক


Leave a Reply