রুদ্র আরিফ

রুদ্র আরিফ

রুদ্র আরিফ একজন বাংলাদেশি কবি, অনুবাদক, সিনে-কর্মী, সাংবাদিক ও ব্যবসায়-উদ্যোক্তা। ২৭ জানুয়ারি ১৯৮৪, বাংলাদেশের চাঁদপুর জেলার মতলব উত্তর উপজেলার এখলাছপুর গ্রামে জন্ম, বর্তমানে অবসরপ্রাপ্ত ব্যাংক-কর্মকর্তা আবদুল হামিদ ও গৃহিণী আফিয়া বেগমের সংসারে। খুবই অল্প বয়সে নিজের প্রথম কবিতাটি লিখেছিলেন। তারপর থেকে কবিতা হয়ে আছে তার শ্বাস-প্রশ্বাস!

মেঘনা নদীর তীরের জন্মগ্রামে বেড়ে ওঠা এবং কৈশোরের প্রথম ভাগ পর্যন্ত কাটানো। তারপর থেকে জীবন কাটাচ্ছেন রাজধানী-শহর ঢাকায়। প্রায় চার শতাধিক কবিতা ও বেশকিছু ছোটগল্প লিখেছেন এখন পর্যন্ত; আর সেগুলোর বেশিরভাগই প্রকাশিত হয়েছে নানা শীর্ষস্থানীয় সংবাদপত্র থেকে শুরু করে লিটলম্যাগ ও ওয়েব পোর্টালে। কবিতার বই প্রকাশিত হয়েছে তিনটি : ওপেন এয়ার কনসার্টের কবিতা [২০০৯]; র‍্যাম্পমডেলের বাথটাবে অন্ধ কচ্ছপ [২০১২] ও হাড়ের গ্যারেজ [২০১৫]। বাংলা তার মুখের ও লেখার ভাষা। মাঝে মধ্যে নিজেই নিজের কবিতা বাংলা থেকে ইংরেজিতে অনুবাদ করেন। এ পর্যন্ত সাহিত্যের তিনটি লিটলম্যাগ সম্পাদনা করেছেন তিনি : গুহাচিত্র [২০০২]; হার্ডব্রেক [২০০৩] ও জেব্রা [২০০৪]।

ফিল্মমেকার হওয়ার প্রস্তুতি হিসেবে, বিখ্যাত ফিল্মমেকার মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর অধীনে, অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর হিসেবে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন ছবিয়াল-এ [একটি মোস্তফা সরয়ার ফারুকী প্রোডাকশন হাউস]; যদিও নিজের এ যাত্রাটি এখনো শুরুই করেননি! সিনে-কর্মী হিসেবে তিনি অনুবাদ ও সম্পাদনা করেছেন বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ফিল্ম-বুক : তারকোভস্কির ডায়েরি [২০১২]; আন্তোনিওনির সিনে-জগত [২০১২]; ফ্রাঁসোয়া ত্রুফো : প্রেম ও দেহগ্রস্ত ফিল্মমেকার [২০১১]; কিয়ারোস্তামির সিনে-রাস্তা [২০১৭]; স্মৃতির তারকোভস্কি [২০১৮]; কুরোসাওয়ার আত্মজীবনী [২০১৮]; সিনেঅলা [৩ খণ্ড, ২০১৪-২০১৭]; ফিল্মমেকারের ভাষা [বিজয় আহমেদের সঙ্গে যৌথ-সম্পাদনা; ৪ খণ্ড (ইরান, আফ্রিকা, লাতিন আমেরিকা, কোরিয়া) ২০০৯-২০১৬]। বাংলাভাষায় অনলাইন কাল্ট ফিল্ম-জার্নাল ফিল্মফ্রি সম্পাদনা করেন তিনি।

সিনিয়র সাব-এডিটর হিসেবে তিনি, ঢাকা থেকে প্রকাশিত শীর্ষস্থানীয় বাংলা পত্রিকা দৈনিক সমকাল-এ ১ জুলাই ২০০৫ থেকে ৩১ জুলাই ২০১৮ পর্যন্ত কর্মরত ছিলেন। এ সময়ে বিভাগীয় সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ঘাসফড়িং [শিশুদের জন্য সাপ্তাহিক সাময়িকী], আলোর পথযাত্রী [তরুণ-তরুণীদের জন্য সাপ্তাহিক সাময়িকী] ও চাকরি নিয়ে [চাকরিপ্রত্যাশীদের জন্য সাপ্তাহিক সাময়িকী], সুহৃদ সমাবেশ [পাঠক সংগঠনের সাপ্তাহিক সাময়িকী], আজ শনিবার [পাঁচমিশালী সাপ্তাহিক সাময়িকী] এবং কুঁড়ির পরের [কিশোর-কিশোরীদের জন্য সাপ্তাহিক সাময়িকী] শিরোনামের ফিচার বিভাগীয় নিয়মিত সাময়িকপত্রগুলোর। ১ আগস্ট ২০১৮-এ তিনি একই পদে যোগ দেন আরেকটি শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকা দৈনিক কালের কণ্ঠ-এ। এখানে কথায় কথায় [সাক্ষাৎকারভিত্তিক সাপ্তাহিক সাময়িকী] ও ক্যাম্পাস-এর [বিশ্ববিদ্যালয়-শিক্ষার্থীদের জন্য সাপ্তাহিক সাময়িকী] বিভাগীয় সম্পাদক হিসেবে কাজ করছেন।

ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের সঙ্গে সম্প্রতি তিনি মিথভিলেজ নামে একটি ইন্টাগ্রেটিভ অ্যাডভার্টাইজিং এজেন্সি প্রতিষ্ঠা করেছেন, এবং পালন করছেন সেটির চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসারের [সিইও] দায়িত্ব। মিথভিলেজ-এর প্রকাশনা ও বিজ্ঞাপনবিষয়ক অনলাইন ওয়েব-পোর্টাল ওয়াটারমেলন অ্যান্ড আদার্স-এর সম্পাদকের ভূমিকা সামলাচ্ছেন।